বিশ্ব মানসিক সাস্থ্য দিবস – ২০১৯

Spread the love

সবাই মিলে আত্মহত্যা প্রতিরোধ করি

আত্মহত্যা প্রতিরোধে একদিনের “৪০ সেকেন্ডের কার্যক্রম”

বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস, ১০ই অক্টোবর, হল এমন একটি দিন, যেদিন বিশ্বব্যাপী মানসিক স্বাস্থ্য উন্নয়নের জন্য সকলকে এক হয়ে কাজ করার আহ্বান জানানো হয়। এ বছরের প্রতিপাদ্য বিষয় হল- ‘আত্মহত্যা প্রতিরোধ’। আমারা প্রত্যকে যে যার অবস্থান থেকে আত্মহত্যা প্রতিরোধে এগিয়ে আসতে পারি। এ কার্যক্রম হতে পারে একান্তে ব্যক্তিগতভাবে অথবা প্রকাশ্যে সামগ্রিকভাবে। ব্যক্তিপর্যায়ে যেমন-  আমাদের আশপাশে যারা সমস্যা মোকাবেলা করে যাচ্ছে কিংবা দুশ্চিন্তায় আছে, তাদের সাথে একান্তে কথা বলা; নিয়মিত খোজ খবর নেয়া, অপরদিকে প্রকাশ্য, যেমন- আঞ্চলিক কিংবা জাতীয় কর্তৃপক্ষের নজরে আনতে ঐ সম্পর্কিত ভিডিও ও তথ্য প্রচার করা, যাতে তারা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে পারে।   

এবছর ১০ই অক্টোবর সবাইকে কিছু কার্যক্রম হাতে নেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে। সবাইকে একদিনের এই ৪০ সেকেন্ডের কার্যক্রমের জন্য প্রস্তত হয়ে তা বাস্তবায়নে এগিয়ে আসার আহ্বান জানানো হয়েছে।   

  • বিশ্বব্যাপী মানুষের স্বাস্থ্য সমস্যা হিসেবে ‘আত্মহত্যা’ এর সম্পর্কে তাৎপর্যপূর্ণ সচেতনতা বাড়াতে হবে।
  • কিভাবে ‘আত্মহত্যা’ প্রতিরোধ করা যায় সে সম্পর্কে আমাদের জ্ঞানের কলেবর বৃদ্ধি করতে হবে।
  • ‘আত্মহত্যা’   এর সাথে সম্পর্কিত   সকল প্রচলিত বিশ্বাস রোধ করতে হবে। এবং 
  • নিজের সমস্যার সাথে সংগ্রামরত মানুষ কে বোঝাতে হবে যে, সে একা নয়।

৪০ সেকেন্ড কার্যক্রমকে আমারা কে কিভাবে কাজে লাগাতে পারি-

  • যদি আপনি নিজেই সমস্যাগ্রস্ত হন, তাহলে দ্রুত ৪০ সেকেন্ডের জন্য আপনার আস্থাভাজন ও বিশ্ব স্ত কারো সাথে আপনার অনুভুতিগুলো নিয়ে কথাবলুন।
  • আপনি যদি, জানতে পারেন কেউ তার কোন প্রিয় কাউকে হারিয়েছে, যে কিনা আত্মহত্যা করতে পারে, তার সাথে ৪০ সেকেন্ড কথা বলুন এবং সে কি করছে খোজ খবর  নিন।
  • যদি আপনি মিডিয়াতে কাজ করেন তাহলে, ৪০ সেকেন্ডের জন্য হলেও এ সংক্রান্ত তথ্য উপাত্ত আপনার সাক্ষাৎকার, প্রবন্ধ কিংবা ব্লগে  উপস্থাপন করুন।
  • যদি আপনি, কলা কিংবা ডিজিটাল প্লাটফর্মে কাজ করেন, তাহলে কাজের ফাকে মানসিক স্বাস্থ্য অথবা আত্মহত্যা প্রতিরোধ সংক্রান্ত ৪০ সেকেন্ডের একটি বার্তা সম্প্রচার করুন।
  • আপনি যদি, কোম্পানি বা অফিসের ম্যানেজার কিংবা মালিক হয়ে থাকেন, তাহলে ৪০ সেকেন্ড সময় নিয়ে, আপনার কর্মচারীদের অধিক মানসিক চাপের সময় সংশ্লিষ্ট সহযোগিতা পাওয়া যায় এমন কোন জায়গা অফিসের ভিতরে কিংবা বাইরে থাকলে সেখান থেকে সহযোগিতা নেয়ার ঘোষণা দিন।
  • যদি সমাজের নেতৃত্ববৃন্দের কাছে এব্যপারে আপনার কোন চাওয়া থাকে, তাহলে আত্মহত্যা প্রতিরোধ এবং মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে তাদের কাছ থেকে কি প্রত্যাশা করেন তা নিয়ে ৪০ সেকেন্ডের একটি অডিও বা ভিডিও ক্লিপ বানিয়ে দেখান।
  • যদি আপনার আরও বড়আকারে পাঠক বা শ্রোতামণ্ডলীর সাথে যোগাযোগের মাধ্যম থাকে (সামাজিক যোগাযোগ, রেডিও ও টেলিভিশন),  তাহলে আত্মহত্যা প্রতিরোধ এবং মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে ৪০ সেকেন্ডের একটি স্লট শেয়ার করুন।
  • যদি আপনি রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হয়ে থাকেন, তাহলে বিভিন্ন আলোচনায় ৪০ সেকেন্ডের জন্য আত্মহত্যা প্রতিরোধ এবং মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক পরিসংখ্যান উল্লেখ্য করুন।   

গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য উপাত্ত

  • আত্মহত্য প্রতিরোধ যোগ্য।  
  • প্রতি ৪০ সেকেন্ডে ১জন ব্যাক্তি আত্মহত্যা করে।  
  • পূর্বের আত্মহত্যার প্রচেষ্টা আত্মহত্যার গুরুত্বপূর্ণ ঝুঁকি নির্দেশক উপাদান।
  • বিশ্বে ১৫-২৯ বৎসর বয়সীদের মৃত্যুর ২য় বৃহত্তম কারণ হল আত্মহত্যা। 
  • সবদেশে যেকোনো বয়সের মানুষই আত্মহত্যায় আক্রান্ত হতে পারে।
Download the Poster

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.